April 20, 2024, 8:32 pm

সাংবাদিক আবশ্যক
সাতক্ষীরা প্রবাহে সংবাদ পাঠানোর ইমেইল: arahmansat@gmail.com
শিরোনাম:
কলারোয়া উপজেলা চাকুরীজীবি কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের সাধারণ সভা সাতক্ষীরায় তীব্র তাপদাহে জনজীবন অতিষ্ট কলারোয়ায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দ্বিতীয় স্ত্রী ঝর্ণা খাতুনের আত্মহত্যা সাতক্ষীরায় সুন্দরবনে হঠাৎ বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারনায় ব্যাস্ত সময় পার করছেন প্রভাষক এম সুশান্ত গণভবনের শাক-সবজি কৃষক লীগ নেতাদের উপহার দিলেন শেখ হাসিনা তালায় পানি নিষ্কাশন এর খাল বন্ধ করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ কলারোয়ায় তৃতীয় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলা শ্যামনগরে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ বন্ধের দাবিতে শ্যামনগরে ধর্মঘট
আমার সম্পদের ওপর চাচার লোভ আছে -এরশাদ পুত্র এরিক

আমার সম্পদের ওপর চাচার লোভ আছে -এরশাদ পুত্র এরিক

বাসা থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছেলে এরিক এরশাদ। তিনি বলেন, ‘আমার সম্পদের ওপর চাচার (জিএম কাদের) লোভ আছে। আমরা ভয়ে বাসার বাইরে যেতে পারছি না। বাসা থেকে বের হলে আর প্রবেশ করতে পারবো কিনা, এমন ভয় পাচ্ছি।’শুক্রবার (২২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এরিক এসব কথা বলেন।এসময় এরিক জানান, নিজের প্রয়োজনেই তিনি মা বিদিশাকে বাসায় ডেকে এনেছেন। তিনি বলেন, ‘আমিই মাকে ফোন করে খাবার রান্না করে বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে আসতে বলেছিলাম। তিনি নিজের ইচ্ছায় আসেননি।’তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমি মাকে ফোন করে বলেছি, আমার অসুবিধা হচ্ছে, ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া পাচ্ছি না। এজন্য মা একটু রান্না করে এনেছেন। আমি তাকে এখানে থাকতে বলেছি। মৃত্যুর আগে বাবা আমাকে বলে গেছেন, কোনোভাবে তোমার মাকে কষ্ট দিও না। মায়ের পায়ের নিচে বেহেশত। রাজনৈতিক কারণে আমি তোমার মাকে অনেক কষ্ট দিয়েছি। তুমি আর নতুন করে কোনও কষ্ট দিও না।এরিক বলেন, ‘আমার চাচা জিএম কাদের বলেছেন, বল প্রয়োগ করে মা (বিদিশা) এখানে এসেছেন। এটা ভিত্তিহীন।’তিনি আরও বলেন, ‘মা নাকি অস্ত্র নিয়ে বাসায় এসেছেন, এটা সত্য কথা না।’ অস্ত্র নিয়ে আসলে পুলিশের লোকেরা তাকে প্রবেশ করতে অনুমতি দিতো না বলে জানান তিনি।

এরিককে নির্যাতনের অভিযোগ বিদিশার:

সম্পদের লোভে এরিককে তার চাচা জিএম কাদের নির্যাতন করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিদিশা। তিনি বলেন, ‘তার চাচার এরিকের প্রতি কোনও আগ্রহ নেই। আগ্রহ এরিকের সম্পদের প্রতি। সম্পদের জন্য তিনি এরিককে নানাভাবে নির্যাতন করেছেন। এমনকি এই বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ছেলেকে খেতে পর্যন্ত দিচ্ছেন না। না খেতে পেরে আমার সন্তান শুকিয়ে গেছে।ড্রাইভারও এরিকের গায়ে হাত তুলেছে দাবি করে বিদিশা বলেন, ‘ড্রাইভার কিভাবে সাহস পায় ওর গায়ে হাত তোলার? আরও যেসব অত্যাচার-নির্যাতন করেছে সেটা মা হিসেবে বলতে পারবো না। এখন আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। বাইরে যেতে পারছি না, ভয় পাচ্ছি। ঘর থেকে বের হলে ফিরতে পারবো কিনা এর নিশ্চয়তা নেই।’বিদিশা বলেন, ‘শেষ কথা আমি আমার সন্তানের অধিকার ছাড়বো না। ছেলের সঙ্গে থাকবো।’ সন্তান যেখানে থাকতে বলবে তিনি সেখানেই থাকবেন বলে জানান বিদিশা।


Comments are closed.

ইমেইল: arahmansat@gmail.com
Design & Developed BY CodesHost Limited
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com