April 20, 2024, 7:07 pm

সাংবাদিক আবশ্যক
সাতক্ষীরা প্রবাহে সংবাদ পাঠানোর ইমেইল: arahmansat@gmail.com
শিরোনাম:
কলারোয়া উপজেলা চাকুরীজীবি কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের সাধারণ সভা সাতক্ষীরায় তীব্র তাপদাহে জনজীবন অতিষ্ট কলারোয়ায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দ্বিতীয় স্ত্রী ঝর্ণা খাতুনের আত্মহত্যা সাতক্ষীরায় সুন্দরবনে হঠাৎ বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারনায় ব্যাস্ত সময় পার করছেন প্রভাষক এম সুশান্ত গণভবনের শাক-সবজি কৃষক লীগ নেতাদের উপহার দিলেন শেখ হাসিনা তালায় পানি নিষ্কাশন এর খাল বন্ধ করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ কলারোয়ায় তৃতীয় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলা শ্যামনগরে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ বন্ধের দাবিতে শ্যামনগরে ধর্মঘট
আ.লীগের সম্মেলনে এমপি-মেয়র গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

আ.লীগের সম্মেলনে এমপি-মেয়র গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।  আজ বুধবার সকালে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পৌর মেয়র গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় উভয় পক্ষের অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।প্রত্যক্ষদর্শিরা জানান, সংঘর্ষ চলাকালে সম্মেলনের ব্যানার, ফেন্টুন ও বিলবোর্ড ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় ককটেল বিস্ফোরণ ও গুলির শব্দে শহরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।নোয়াখালী জেনালের হাসপাতালে আবাসিক মেডিকেল অফিসার সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম জানিয়েছেন সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে ৫৩ জনকে হাসপাতোলে আনা হয়েছে। তাদের চিকিৎসা চলছে।জানা যায়, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহিদ উল্যাহ খাঁন সোহেলের অনুসারীরা জজকোর্ট সড়ক থেকে মিছিল নিয়ে শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামের দিকে যাচ্ছিলেন। একই সময় জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও সদর-সুবর্ণচর আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরীও সম্মেলন স্থলে যাচ্ছিলেন। নোয়াখালী টাউন হলের মোড়ে উভয় পক্ষ মুখোমুখি হলে প্রথমে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও পরে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এক পর্যায়ে ককটেল বিষ্ফোরণ ও গুলির শব্দে শহরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।এব্যাপারে সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী অভিযোগ করেন, শান্তিপূর্ণ সম্মেলনকে বাণচাল করার উদ্দেশ্যে মেয়রের লোকজন শহরে পরিকল্পিতভাবে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে।তবে নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহিদ উল্যাহ খাঁন সোহেল পাল্টা অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেন, বিনা উস্কানিতে এমপি ও তার লোকজন আমাদের লোকজনের ওপর হামলা চালিয়েছেন।নোয়াখালী পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন বলেন, পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। পরিস্থিতি নিয়েন্ত্রণে রাখতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সর্বোচ্চ সর্তক অবস্থায় রয়েছেন।


Comments are closed.

ইমেইল: arahmansat@gmail.com
Design & Developed BY CodesHost Limited
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com