April 21, 2024, 2:11 pm

সাংবাদিক আবশ্যক
সাতক্ষীরা প্রবাহে সংবাদ পাঠানোর ইমেইল: arahmansat@gmail.com
শিরোনাম:
সাতক্ষীরা টাউন হাইস্কুল গণহত্যা দিবস পালিত দালালমুক্ত করতে গিয়ে চাপের মুখে সাতক্ষীরা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস! কলারোয়ায় গলায় গামছা পেঁচিয়ে এক ব্যক্তির আত্মহনন সাংবাদিক সেলিম রেজা মুকুলের স্ত্রীর মৃত্যুতে প্রেসক্লাবের গভীর শোক জ্ঞাপন মোটরযানের উপর সাতক্ষীরায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা কলারোয়া উপজেলা চাকুরীজীবি কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের সাধারণ সভা সাতক্ষীরায় তীব্র তাপদাহে জনজীবন অতিষ্ট কলারোয়ায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দ্বিতীয় স্ত্রী ঝর্ণা খাতুনের আত্মহত্যা সাতক্ষীরায় সুন্দরবনে হঠাৎ বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারনায় ব্যাস্ত সময় পার করছেন প্রভাষক এম সুশান্ত
ঈদকে সামনে রেখে সাংবাদিকদের নীরব চাঁদাবাজির অভিযোগ

ঈদকে সামনে রেখে সাংবাদিকদের নীরব চাঁদাবাজির অভিযোগ

ঈদকে সামনে রেখে সাতক্ষীরা জেলাব্যাপি সাংবাদিকদের নীরব চাঁদাবাজি চলছে। বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠন বা ২-৩ জন মিলে বিভিন্ন ইটভাটা, ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বর, উপজেলার কৃষি অফিস, মৎস্য অফিস, সমাজসেবা অফিস, বিআরডিবি অফিস, একটি বাড়ি একটি খামার, মহিলা বিষয়ক অফিস, পিআইও অফিস, এলজিইডি অফিস, একাউন্টস অফিস, খাদ্যগুদাম, রেজিস্ট্রি অফিস, ইউনিয়ন ভূমি অফিস, আনছার ভিডিপি অফিস, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার অফিস, জেলা পরিষদ সদস্যর অফিস, বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতির অফিস, প্রাণিসম্পদ অফিস, থানা পুলিশের কিছু সদস্য রয়েছে তাদের টার্গেট। এর মধ্যে অকেকে চাঁদা তুলতে শুরু করেছে। এই চাঁদাবজরা টাকা কম হলে হুমকিও দিচ্ছে জায়গা বিশেষ স্থানে। অনেকে ভয়ে মুখ খুলছেন না। তারা আপসে মেটাচ্ছেন চাঁদাবাজদের দাবি। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, বিগত বছরগুলোর মতো এবারও ঈদ ঘিরে সক্রিয় চাঁদাবাজদের বিভিন্ন গ্রুপ। এরা সবাই পরিচিত কিংবা মুখ পরিচিত।

যে কারণে পুলিশে অভিযোগ করেন না তারা। খোরদো এলাকার এক ইটভাটা মালিক জানান, ২০ রোজার পর থেকেই শুরু হয়েছে ঈদ সেলামি দেয়া। না দিলে রেহাই নেই। লাইফ ও ব্যবসার রিস্ক থাকে। প্রতিবার চাঁদা দিয়ে আসছেন কিন্তু এবার উৎপাত একটু বেড়েছে। এদিকে চাঁদাবাজদের উৎপাতে রীতিমতো অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন কলারোয়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যাণগণ। তারা জানিয়েছেন, চাঁদার পরিমাণ বেড়ে তিনগুণ হয়েছে। কলারোয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শেখ মোসলেম আহম্মেদ বলেন, কিছু সাংবাদিক নামধারী অসাধু ব্যক্তি বিভিন্ন স্থানে চাঁদাবাজি করছে বলে অভিযোগ পেয়েছেন তিনি। কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মীর খায়রুল কবীর বলেন, রমজানে ছিনতাই, টানা পার্টিসহ সব ধরনের অপরাধ দমনে পুলিশ বরাবরের মতো বিশেষ টহলের ব্যবস্থা করেছে।

রাতে বাজার নিরাপত্তায় পুলিশ কাজ করছে। এখন পর্যন্ত কলারোয়াতে বড় ধরনের অপরাধ ঘটেনি। পরিস্থিতি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তিনি আরও বলেন-কলারোয়াতে যদি আমরা থাকি তবে কোনো চাঁদাবাজ থাকতে পারবে না। চাঁদাবাজ যেই হোক, অভিযোগ পেলে তাকে সঙ্গে সঙ্গে আইনের আওতায় আনা হবে। এ বিষয়ে পুলিশের অবস্থান জিরো টলারেন্স। এদিকে কেউ কাউকে ভয় দেখিয়ে টাকা পয়সা দাবী করে হুমকি ধামকি দিলে তাৎক্ষণিকভাবে কলারোয়া থানা পুলিশ-ওসি-০১৩২০১৪২২০৫, উপজেলা নির্বাহী অফিসার-ইউএও-০১৭০৯৩১৯৭৩০৯ ও উপজেলা পরিষদ-চেয়ারম্যান-০১৭১২২০২৯০৭ এর জানানোর জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়েছে।


Comments are closed.

ইমেইল: arahmansat@gmail.com
Design & Developed BY CodesHost Limited
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com