May 23, 2024, 9:36 pm

সাংবাদিক আবশ্যক
সাতক্ষীরা প্রবাহে সংবাদ পাঠানোর ইমেইল: arahmansat@gmail.com
শিরোনাম:
কলারোয়ায় যুবলীগ সভাপতি শাহাজাদার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক জমি দখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

কলারোয়ায় যুবলীগ সভাপতি শাহাজাদার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক জমি দখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

কলারোয়া প্রতিনিধি||কলারোয়া উপজেলা যুবলীগ সভাপতি শাহাজাদা কর্তৃক রেকর্ডীয় সম্পত্তি জোর পূর্বক দখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে উক্ত সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন, কলারোয় উপজেলার কোঠাবাড়ী গ্রামের শেখ জাকির হোসেন মুকুলের স্ত্রী রাজিয়া খাতুন।তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, উপজেলার শুভংকরকাটি মৌজায় ৩৪০ দাগে আমরা ও আমাদের প্রতিবেশী শেখ মশিউর রহমান বসবাস করে আসছিলাম। গত ২০১৮ সালের দিকে পরসম্পদ লোভী জামায়াত কর্মী মশিউর রহমান বাড়ি নির্মাণ করার সময় কৌশলে আমাদের ২ শতক সম্পত্তি দখল করে দেওয়াল ওঠায়। এসময় আমরা প্রতিবাদ করলে তিনি আমাদের কথায় কর্ণপাত না করে কাজ অব্যহত রাখেন। আমি আদালতে মামলা দায়ের করি। আদালত তাকে বাড়ি নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।
এদিকে, সুচতুর মশিউর রহমান উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শাহাজাদাকে মোটা অংর্থের বিনিময়ে ম্যানেজ করেন। শাহাজাদা তার পক্ষ নিয়ে আমাদের বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদর্শন করেন। পরবর্তীতে শাহাজাদার নেতৃত্বে স্থানীয়ভাবে বসাবসি করে সিদ্ধান্ত দেন বাড়ি নির্মাণের পর আমাদের যতটুকু জমি পড়েছে তা সামনে থেকে বুঝিয়ে দেবেন। কিন্তু বাড়ি নির্মাণ হওয়ার পর শাজাহাদা আমাদেরকে আর কোন জমি দেবে না বলে জানান। এছাড়া বাড়িতে মহিলাদের পাঠিয়ে মারপিট ও ভাংচুর করবে বলে জানান। আর যাতে কোন মামলা না হয় সে জন্য হুমকি প্রদর্শন করতে থাকেন। এছাড়া কলারোয়া থানা পুলিশকে ভুল তথ্য দিয়ে আমাদের বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে হয়রানি করে যাচ্ছেন। যদিও পুলিশ শাহাজাদার তথ্যের কোন প্রমাণ না পেয়ে চলে আসেন। এরই জের ধরে গত ৩১ আগস্ট তারিখে শাহাজাদার নির্দেশে তার সহযোগী আফছানের স্ত্রী রিকতা, আফছান, আলেয়া, এ্যানি, দখলদার মশিউরের স্ত্রী শাহিনা খাতুন, কন্যা শারমিনসহ ১৫/২০ মহিলা সংঘবদ্ধভাবে আমাদের বাড়িতে প্রবেশ করে ভাংচুর শুরু করেন এবং আমার চুলের মুঠি ধরে টানাটানি করে মারপিট করে গুরুতর আহত করেন। এসময় আফসানের স্ত্রী রিকতা বলেন, আমি শাজাহাদার শালী, তোরা কোন সম্পত্তি পাবি না, দাবি করলে বাড়িতে বোমা মেরে উড়িয়ে দেবো’ সাতক্ষীরা থেকে তোর ভাই লতিফসহ কেউ আসলে কলারোয়া বাজারে শাহাজাদা ও তার বাহিনীকে দিয়ে কুপিয়ে দেবো মর্মে শাসিয়ে যান। অথচ শাহাজাদা যার পক্ষ নিয়ে আমাদের জমি দখল করছেন সেই মশিউর উপজেলা জামায়াতের সক্রিয় কর্মী। কিন্তু শাজাহাদা যুবলীগের নেতা হয়েও শুধু মাত্র অর্থের বিনিময়ে দলীয় আদর্শকে ভুলুণ্ঠিত করে এ কাজ করে যাচ্ছেন। যা দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের শামিল। তিনি অত্র এলাকায় সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছেন। তার ভয়ে কেউ মুখ খুলতে চাননা। তিনি আরো বলেন, আমরা বর্তমানে ওই সন্ত্রাসী শাহাজাদা ও তার বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে পড়েছি। এমতাবস্থায় আমি সন্ত্রাসী জমি দখলকারী শাহাজাদার হাত থেকে আমাদের রেকর্ডীয় সম্পত্তি উদ্ধার এবং জীবনের নিরাপত্তার দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, রাজিয়ার স্বামী শেখ জাকির হোসেন ও ভাই শেখ আব্দুল লতিফ।


Comments are closed.

ইমেইল: arahmansat@gmail.com
Design & Developed BY CodesHost Limited
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com