May 29, 2024, 2:43 am

সাংবাদিক আবশ্যক
সাতক্ষীরা প্রবাহে সংবাদ পাঠানোর ইমেইল: arahmansat@gmail.com
পাকিস্তানকে হারিয়ে শ্রীলঙ্কার টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়

পাকিস্তানকে হারিয়ে শ্রীলঙ্কার টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়

খেলার খবর: টি-টোয়েন্টিতে শীর্ষ দল পাকিস্তান, আর সাম্প্রতিক সময়ে এই ফরম্যাটে বাজে সময় কাটছে শ্রীলঙ্কার। আগের চারটি সিরিজই হেরে গেছে তারা। আর পাকিস্তান সফরে যাননি সিনিয়র ক্রিকেটাররাও। এই দল নিয়েই পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথমবার দ্বিপাক্ষিক টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের স্বাদ পেলো শ্রীলঙ্কা।

সোমবার লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে ৩৫ রানে দ্বিতীয় ম্যাচ জিতলো শ্রীলঙ্কা। এক ম্যাচ হাতে রেখেই তারা নিশ্চিত করলো সিরিজও। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামে শ্রীলঙ্কা। ভানুকা রাজাপক্ষর ঝড়ো ফিফটিতে ৬ উইকেটে ১৮২ রান করে তারা। জবাবে ১৯ ওভারে ১৪৭ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান।

গত ম্যাচের হাফসেঞ্চুরিয়ান দানুশকা গুনাথিলাকা তৃতীয় ওভারে শিকার হন ইমাদ ওয়াসিমের। মাত্র ১৫ রান করে সরফরাজ আহমেদের গ্লাভসে ধরা পড়েন লঙ্কান ওপেনার। প্রথম ম্যাচে গুনাথিলাকার সঙ্গে দুর্দান্ত উদ্বোধনী জুটি গড়া আভিস্কা ফার্নান্ডোও সুবিধা করতে পারেননি। মাত্র ৮ রান করে পঞ্চম ওভারে শাদাব খানের কাছে রান আউট হন।

আগের ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া ভানুকার ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় শ্রীলঙ্কা। তাকে উপযুক্ত সঙ্গ দেন শেহান জয়াসুরিয়া। দুজনের ৬২ বলে ৯৪ রানের চমৎকার জুটি স্বস্তিতে রাখে সফরকারীদের। স্কোরবোর্ডে দলীয় ১৩৫ রানে শেহান বিদায় নেন, ২৯ বলে ৩৪ রানে রান আউট হন তিনি। এই জুটি গড়ার পথে ৩১ বলে দুই চার ও চার ছয়ে প্রথম হাফসেঞ্চুরি করেন ভানুকা।

শেহান ফেরার পরের ওভারে মাঠ ছাড়েন ভানুকা। ৪৮ বলে ৪টি চার ও ৬টি চয়ে সাজানো ছিল তার ৭৭ রানের সেরা ইনিংস। এরপর অধিনায়ক দাসুন শানাকা জ্বলে ওঠেন, ১৫ বলে ৩ চার ও ১ ছয়ে ২৭ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

পাকিস্তানের পক্ষে বল হাতে ইমাদ ওয়াসিম, ওয়াহাব রিয়াজ ও শাদাব একটি করে উইকেট নেন।
বড় লক্ষ্যে নেমে চতুর্থ ওভারের মধ্যে ১১ রানে দুই ওপেনার ফখর জামান (৬) ও বাবর আজম (৩) বিদায় নেন। এই ধাক্কা সামলে ওঠার চেষ্টা করছিলেন আহমেদ শেহজাদ ও সরফরাজ। কিন্তু ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার দ্বিতীয় ওভারে তছনছ হয় স্বাগতিকদের ব্যাটিং লাইন আপ। ওই ওভারে তিন উইকেট নেন তিনি।

অষ্টম ওভারের তৃতীয় বলে শেহজাদকে (১৩) বোল্ড করে ৪০ রানের জুটি ভাঙেন হাসারাঙ্গা। পরের বলে উমর আকমলকে এলবিডাব্লিউ করেন এই স্পিনার। টানা দুই ম্যাচে ‘গোল্ডেন ডাক’ হলেন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান। আসিফ আলী ডিপ মিডউইকেটে একটি রান নিয়ে হাসারাঙ্গাকে হ্যাটট্রিকবঞ্চিত করলেও ওভারের শেষ বলে সরফরাজ বোল্ড হন। ১৬ বলে ৩ চার ও ১ ছয়ে ২৬ রান করেন পাকিস্তানি অধিনায়ক।

মাত্র ৫২ রানে ৫ উইকেট হারানো পাকিস্তানকে টেনে তোলেন ইমাদ ও আসিফ। একপ্রান্ত আগলে রেখে ঝড় তোলেন ইমাদ। তাদের ৪৭ বলে ৭৫ রানের ঝড়ো জুটি ভেঙে ব্রেক থ্রু আনেন ইসুরু উদানা। ১৬তম ওভারে ২৯ বলে ৮ চারে ৪৭ রান করে এলবিডাব্লিউ হন ইমাদ। পরের দুই ওভারে ওয়াহাব রিয়াজ (৭) ও শাদাব (০) আউট হন।

১৯তম ওভারে আসিফকে ২৯ রানে বোল্ড করেন ‍নুয়ান প্রদীপ। শেষ বলে তিনি মোহাম্মদ হাসনাইনকে (১) হাসারাঙ্গার ক্যাচ বানিয়ে জয় নিশ্চিত করেন।

৪ ওভারে ২৫ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নিয়েছেন প্রদীপ। তিনটি নেন হাসারাঙ্গা। ম্যাচসেরা হয়েছেন ভানুকা।

হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর লক্ষ্যে আগামী বুধবার লাহোরেই লঙ্কানদের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান।


Comments are closed.

ইমেইল: arahmansat@gmail.com
Design & Developed BY CodesHost Limited
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com