February 27, 2024, 12:52 am

বিএনপি জোটের আন্দোলন চলে অদৃশ্য রিমোট কন্ট্রোলে: কাদের

বিএনপি জোটের আন্দোলন চলে অদৃশ্য রিমোট কন্ট্রোলে: কাদের

বিএনপি জোটের আন্দোলন অদৃশ্য রিমোট কন্ট্রোলে চলছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, দেশে আজগুবি যত খবর, তা ছড়াচ্ছে বিএনপি ও তার দোসররা। গতকাল শুক্রবার বিকেলে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ ও ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের সঙ্গে যৌথসভায় তিনি এ কথা বলেন। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ যৌথসভা হয়। ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি জোট বিদেশিদের দিকে তাকিয়ে আছে। তারা বাংলাদেশকে নিষেধাজ্ঞা দিতে লবিং করছেন। আওয়ামী লীগবিরোধী সব শক্তি ও বেশ কিছু অপশক্তি নিয়ে জোট গঠন করেছে বিএনপি। জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার পাঠক, ঘোষক নয় উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ১৯৭৫ সালের নৃশংস ঘটনা ঘটানোই হয়েছে আওয়ামী লীগকে ও মুক্তিযুদ্ধকে ধ্বংস করার জন্য। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি ও সমমনা দলগুলোর কর্মসূচিতে কোনো সংঘাতের উসকানি না দিতে নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী সভাপতি শেখ হাসিনা। তবে আগামী জাতীয় নির্বাচন পর্যন্ত প্রতিদিন কর্মসূচি করবে আওয়ামী লীগ। জিয়াউর রহমানের বাকশালে যোগ দেওয়ার কথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন বাকশাল নিয়ে গালি দেয়। অথচ বঙ্গবন্ধুর কাছে দরখাস্ত করে বাকশালে যোগ দিয়েছিল। তিনি বলেন, সেনাপ্রধান, চিফ অব আর্মি স্টাফ- এদের পদাধিকারবলে (বাকশালের) সদস্য হওয়ার কথা। কিন্তু জিয়াউর রহমান উপ-সেনাপ্রধান ছিল, তার বাকশালের সদস্য হওয়ার কথা না। জিয়াউর রহমান বিশ্বাসঘাতক- উল্লেখ করে কাদের বলেন, এদেশে চোখের পলকে ১৫ আগস্ট ঘটে গেছে। নিরাপত্তার বিষয়ে আমাদের উদ্বেগ কি ভিত্তিহীন? বিশ্বাসঘাতক না থাকলে কি ১৫ আগস্ট ঘটত? জিয়াউর রহমানের বিশ্বাসঘাতকতা, খন্দকার মোশতাকের বিশ্বাসঘাতকতার কারণে ১৫ আগস্ট ঘটেছে। ৩-৭ নভেম্বর কত সেনাবাহিনী কর্মকর্তাদের জিয়াউর রহমান হত্যা করেছেন বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ফখরুলের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন রেখে কাদের বলেন, তিনি করবেন আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা! বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলো কেন? জয় বাংলা নিষিদ্ধ হলো কেন? বাংলাদেশ বেতার, রেডিও বাংলাদেশ হলো কেন? স্বাধীনতার আদর্শ ধ্বংস হলো কেন? শেখ হাসিনাকে বিদেশে থেকে বাংলাদেশে ফিরে আসতে জিয়াউর রহমান বারবার বাধা দিয়েছেন বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। ফখরুলের সমালোচনা করে কাদের বলেন, নেত্রীর নিরাপত্তার কথা বলে নাকি আমি তোষামোদি করেছি। আপনাদের কামনায় আওয়ামী লীগের ধ্বংস। শেখ হাসিনার জীবন নিরাপদ নয়, এটা বলে নাকি মহা অন্যায় করে ফেলেছি। সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, অ্যাড. কামরুল ইসলাম, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মির্জা আজম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জি. আবদুস সবুর, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী, যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামশ পরশ, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল প্রমুখ। ‘সরকারের পেছনে আজরাইল ঘুরছে’ মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করে কাদের তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল, আপনি কি আল্লাহর ফেরেস্তা? আপনি কী করে জানেন আজরাইল কার পেছনে ঘুরছে? ফখরুল সাহেব আল্লাহ আপনাকে কবে ফেরেস্তা বানাল, নবী বানাল। বিএনপি গুজব ছড়ায় উল্লেখ করে কাদের বলেন, বিএনপি ও তাদের দোসররা আজগুবি ও নষ্ট রাজনীতি করে। তিনি বলেন, বিএনপি জোটের আন্দোলন চলে অদৃশ্য নির্দেশে। তারা বিদেশিদের ওপর ভর করছে। বিএনপির লক্ষ্যই হলো আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করা। তারা ষড়যন্ত্রের রাজনীতি করে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনের আগে বিরতিহীনভাবে কর্মসূচি, জনসংযোগ ও অবস্থান কর্মসূচি চলবে। জানমালের নিরাপত্তা রক্ষায় সতর্ক অবস্থানে থাকবে আওয়ামী লীগ। সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, অ্যাড. কামরুল ইসলাম, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মির্জা আজম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জি. আবদুস সবুর, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী, যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামশ পরশ, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল প্রমুখ।


Comments are closed.

© সাতক্ষীরা প্রবাহ
Design & Developed BY CodesHost Limited