March 1, 2024, 9:31 pm

৩০০ গ্রাম গাঁজা সহ সুমন ও সোলায়মান আটক

৩০০ গ্রাম গাঁজা সহ সুমন ও সোলায়মান আটক

গাঁজা বিক্রিকালে হাতে-নাতে দুই যুবক মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের অভিযানে আটক হয়েছে। এরা হলো সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়নের বড়খামার গ্রামের মোঃ মুনছুর আলী কারিকরের পুত্র মোঃ সোলায়মান হোসেন কারিকর (২৫) ও ফিংড়ি ইউনিয়নের বালিথা গ্রামের মোঃ ইউনুস আলী ওরফে মিঠাই এর পুত্র সুমন (২২)।জানা যায়, জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন কার্যালয়ের উপ পরিদর্শক বিজয় কুমার মজুমদার ও বিভাগীয় সহকারী উপ-পরিদর্শক মদন মোহন সাহার নেতৃত্বে একটি টিম রবিবার (১৩ অক্টোবর) বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বড়খামার গ্রামের আনোয়ারার দোকানের সামনে থেকে ১০০ গ্রাম গাঁজা সহ সুমনকে আটক করে। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তার দেয়া তথ্য মতে অভিযান চালিয়ে সোলায়মান হোসেনের বাড়িতে তল্লাশী করে ২০০ গ্রাম গাঁজা সহ সোলায়মান আটক হয়।জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, সোলায়মান ও সুমন নব্য গাঁজা ব্যবসায়ী। তারা এলাকায় ফেরি করে ও বাড়ীতে বসে গাঁজা বিক্রি করে আসছিল। ওই এলাকার মিন্টু, শাহজাহান, শুকুর, কবির, তফিকুল, বকুল, সালাম, আব্দুল হাই, কুরবান আলী, কুদ্দুস সহ বেশ কয়েকজন যুবকের মাদক কেনা-বেচার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। এদের মধ্যে কেউ কেউ সোলায়মানকে ধুলিহর বাজারের বিভিন্ন চায়ের দোকানে ও পয়েন্টে গাঁজা বিক্রিতে সহায়তার অভিযোগ রয়েছে। এমনকি সোলায়মানও তাদের নাম প্রকাশ করেছে। এসব যুবকের বিরুদ্ধে সকল তথ্য পাওয়ারও কথা জানান এই কর্মকর্তা। জড়িত থাকা যুবকদের বিরুদ্ধে বিভিন্নভাবে তদন্ত ও সনাক্ত করার কাজ চলছে।আটক সুমন ও সোলায়মানের বিরুদ্ধে মাদক আইনে পৃথক দুইটি মামলা হয়েছে। তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।মামলার বাদী জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কার্যালয়ের উপ-পরিদর্শক বিজয় কুমার মজুমদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, মাদক ব্যবসায়ী, মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায় জড়িত ও আশ্রয়-প্রশ্রয়কারীদের কোন ছাড় নেই। সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। জেলা থেকে মাদক মুক্ত করাই আমাদের মুল লক্ষ্য।


Comments are closed.

© সাতক্ষীরা প্রবাহ
Design & Developed BY CodesHost Limited